সোমবার, নভেম্বর ২০, ২০১৭ ,৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
০৪ অক্টোবর ২০১৬ মঙ্গলবার , ৪ : ১২ অপরাহ্ন

  • ফতুল্লায় তিন অপহৃতকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব ॥ আটক-১

    x

    Decrease font Enlarge font

    Times-07টাইমস নারায়ণগঞ্জ: অপহৃত তিন ব্যক্তিকে উদ্ধারসহ এক অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১, সিপিসি-১, নারায়নগঞ্জ।  মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বার্তায় র‌্যাব-১১ জানায়,  নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জ জেলায় বেশ কিছু দিন যাবৎ অপহরণকারী দলের সদস্যরা সক্রিয় হয়ে উঠে। এ সকল অপহরণকারী দলের সদস্যরা বিভিন্ন সময়ে শহরের বিভন্ন স্থান হতে সাধারণ নিরিহ লোকদেরকে অপহরণ করে নিয়ে যায় এবং অপহরণকৃত ভিকটিমের পরিবার হতে মোটা অংকের টাকা মুক্তিপন হিসেবে দাবি করে। তাছাড়া নারায়ণগঞ্জ শহরে বিভিন্ন সময়ে পত্র পত্রিকায় ফলোআপ করে প্রচার করা হয় যে, মুক্তি পনের টাকা দিতে না পারার কারনে অপহৃত ভিকটিমকে হত্যা করা হয়েছে। বর্তমান সময়ে অপহরনের মাত্রা যেন দিন দিন বেড়েই চলেছে। কিন্তু অপহরণকারী চক্রের সদস্যদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাবের গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় ৩ অক্টোবর ২০১৬ তারিখ বাদী মোঃ ফিরোজ হোসেন (২৫), পিতা-মোঃ ইসমাইল আলী, সাং-রামচন্দ্রপুর, থানা-চাটমহর, জেলা-পাবনা এ/পি ধোলাইপাড়, সাবান ফ্যাক্টরীর গলি, সংগীত সিনেমা হলের পশ্চিমপার্শ্বে, থানা-শ্যামপুর, জেলা-ঢাকা ক্যাম্পে অভিযোগ দায়ের করেন যে, বাদী ও সাথে আরও ৩ জন মিলে একত্রে  নারায়নগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানাধীন মাসদাইর গাবতলী মোড়স্থ আমেনা গার্মেন্টেস এর সামনে সরিষা ভাঙ্গানোর মেশিন দ¦ারা তৈল ভাঙ্গিয়ে বিক্রয় করছিল। সরিষার তৈল বিক্রি করার এক পর্যায়ে একজন ব্যক্তি ভিকটিমদের নিকট হতে তৈল ক্রয় করে টাকা নেওয়ার জন্য গ্যারেজের মধ্যে ভিকটিমদের আসতে বলেন। ভিকটিমরা সরিষার তৈলের টাকা নেওয়ার জন্য গ্যারেজের ভিতর গেলে ভিকটিমদেরকে আটক করে রেখে ৬০,০০০/- ষাট হাজার টাকা মুক্তিপন দাবি করে। বাদির এহেন অভিযোগের প্রেক্ষিতে র‌্যাব-১১, সিপিসি-১, নারায়ণগঞ্জ এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার এএসপি শাহ্ শিবলী সাদিক এবং এএসপি মোঃ ইকবাল হোসেনদ্বয়ের নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানাধীন মাসদাইর গাবতলী আমেনা গার্মেন্টস এর ১০০ গজ পূর্বে বাদীর দেখানো মতে ব্যাটারী চালিত একটি ইজি বাইকের গ্যারেজে অভিযান পরিচালনা করে ভিকটিম ১। মোঃ ফরিদ (৩৮), পিতা-মৃত-তৈয়ব আলী, ২। মোঃ শরিফ (৩২), পিতা-মোঃ জামাল উদ্দিন, সর্ব সাং-রামচন্দ্রপুর, সর্ব থানা-চাটমহর, ৩। মোঃ হাফিজুর রহমান (৪১), পিতা-মোঃ ইসমাইল কর্মকার, সাং-নুরনগর, থানা-ভংগুরা, সর্ব জেলা-পাবনা এ/পি ধোলাইপাড়, সাবান ফ্যাক্টরীর গলি, সংগীত সিনেমা হলের পশ্চিমপার্শ্বে, থানা-শ্যামপুর, জেলা-ঢাকাদেরকে উদ্ধার করেন। উল্লেখিত গ্যারেজ হতে ঐ সময়ে অপহণকারী চক্রের সদস্য মোঃ নজরূল ইসলাম @ মগা (৩৫), পিতা-মৃত-মনোয়ার আলী বেপারী, সাং-শিকিরচর, থানা-ছঙ্গারচর, জেলা-চাদঁপুর, এ/পি- মাসদাইর গাবতলী লতিফ সরদারের বাড়ী, থানা-ফতুল্লা জেলা-নারায়নগঞ্জকে হাতেনাতে গ্রেফতার করেন। অভিযান পরিচালনার সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে অপহরণকারী চক্রের ১ জন সদস্যসহ অজ্ঞাতনমা ২/৩ জন  পলায়ন করেন। উল্লেখ্য ঘটনাস্থল হতে আসামীর নিকট হতে মুক্তি পনের ২২,৭৯০/- টাকা উদ্ধার করা হয়। এ সংক্রান্তে বাদী মোঃ ফিরোজ হোসেন ধৃত আসামী এবং একজন পলাতক আসামীসহ অজ্ঞাতনাম ২/৩ জনের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা মডেল থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন।