বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৯, ২০১৭ ,৪ কার্তিক ১৪২৪
১৫ ডিসেম্বর ২০১৬ বৃহস্পতিবার , ৯ : ১০ অপরাহ্ন

  • যানজট নিরসনের দায়িত্ব মেয়রের: সেলিম ওসমান

    x

    Decrease font Enlarge font

    10টাইমস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ বাসীর দীর্ঘ দিনের দাবী নাসিম ওসমান মেমোরিয়াল এমিউজমেন্ট পার্ক এর উদ্বোধন করলেন ৫ আসনের সাংসদ সেলিম ওসমান।

    বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) বিকেল ৫ টায় ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিঙ্ক রোডস্থ খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামের বিপরীত পাশে নির্মিত এ র্পাকটি উদ্বোধন করা হয়।

    পার্কের উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান।

    আরো উপস্থিত ছিলেন, সংরক্ষিত মহিলা সাংসদ এড. হোসনে আরা বাবলী, মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক শাহ নিজাম, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক শওকত আলী, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান, সাধারন সম্পাদক ইয়াসিন, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কর্মাস এর সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবু জাহের।

    এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সেলিম ওসমান বলেন, এমন একটা সময় এ অনুষ্ঠানটি হচ্ছে যেখানে বক্তব্য দিতে গেলে কারো পক্ষে বা কারো বিপক্ষে যাবে। তাই মন খুলে বক্তব্য দেয়ার সময় এখন নয়। তবে এতটুকু বলবো প্রধানমন্ত্রী দেশকে নিয়ে স্বপ্ন দেখেছেন নারায়ণগঞ্জ থেকেই এর সূচনা হবে।

    11এ সময় মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনকে উদ্দেশ্য করে সেলিম ওসমান বলেন, আগামী বছর আপনি জেলা পরিষদের প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহন করার পরই যানজটের বিষয়টি মাথায় রেখে ডাক বাংলার কিছু অংশ সরিয়ে ফেলবেন। কারন যানজটের ফলে নগরবাসীর ভোগান্তির শেষ নেই। এটা আমাদের দায়িত্বে পরে না, এই কাজটি মেয়রের কিন্তু এখনো আমরা যানজটের মধ্যেই রয়ে গেছি। আপনার জেলা পরিষদের অনেক অর্থ রয়েছে যেটা বিভিন্ন ব্যাংকে সুদে লাগানো রয়েছে। সেই টাকা গুলো জনগনের কাজে ব্যবহার করুন।

    এ সময় তিনি পাকের্র কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আর্কষন করে বলেন, আপনাদের প্রতি আমার অনুরোধ থাকবে সপ্তাহে একবার অন্তত ২ ঘন্টার জন্য হলেও পার্কটি উন্মুক্ত রাখবেন। যারা এই জায়গায় আসার কথা স্বপ্নেও ভাবতে পারে না, তারা আসতে পারবে।

    সাংসদ শামীম ওসমান বলেন, এই র্পাকটি যার নামে করা হয়েছে তিনি আমার বড় ভাই। যিনি বাংলাদেশের প্রথম ব্যাক্তি যে নতুন বৌ’কে ঘরে রেখে স্বর্ন অলঙ্কার নিয়ে বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদে অস্ত্র হাতে তুলে নিয়ে ছিলেন। আজ যেখানে পার্কটি উদ্বোধন করা হচ্ছে সেখানে এক সময় ময়লার গন্ধে চলাচল করা যেতো না। প্রাচ্যের ডান্ডি নারায়ণগঞ্জ এ কোন বসার জায়গা ছিলো না, এই পার্কের মাধ্যমে সেই ব্যবস্থা হলো। এই বিজয়ের মাসে আমার ভাইকে যে সম্মান দেখানো হয়েছে, সেই জন্য আয়োজক গোষ্ঠীকে আমি ধন্যবাদ জানাই।

    এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হক নিপু, জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সুজন, সাংগঠনিক সম্পাদক আতাউর রহমান নান্নু সহ প্রমূখ।