শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০১৭ ,১২ ফাল্গুন ১৪২৩
২৮ ডিসেম্বর ২০১৬ বুধবার , ৩ : ০৯ অপরাহ্ন

  • নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ

    x

    Decrease font Enlarge font

    01টাইমস নারায়ণগঞ্জ: দু’একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়াই শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচন। বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত একটানা চলে ভোট গ্রহণ।

    ১৫টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের নির্বাচনে ইতিমধ্যেই বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় চেয়ারম্যানসহ ৫টি ওয়ার্ডে সাধারন সদস্য এবং সংরক্ষিত ৩টি ওয়ার্ডে নারী সদস্য নির্বাচিত এবং নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন ৩টি ওয়ার্ডে ভোট গ্রহণ স্থগিত হওয়ায় ৭টি ওয়ার্ডে এদিন ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

    স্বাধীন বাংলাদেশে এই প্রথমবারের মত জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো। তবে সাধারন জনগণের পরিবর্তে শুধুমাত্র স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতাধীন সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিরা ভোটার হওয়ায় নির্বাচনে তেমন কোন আমেজ পরিলক্ষিত হয়নি।

    এদিকে, সকালে রূপগঞ্জ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্থানীয় রানু চেয়ারম্যান প্রায় ১০/১২ জন লোক নিয়ে ভোট কেন্দ্রে প্রবেশের চেষ্টা করলে সেখানে দায়িত্বরত আইন-শৃংখলা বাহিনীর বাঁধায় কিছুটা বিশৃংখলার সৃষ্টি হয়। এছাড়া নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও একজন জনপ্রতিনিধি মোবাইল ফোন নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশের চেষ্টা করলে বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হয়। আর পায়ের মধ্যে লুকিয়ে মোবাইল ফোন নিয়ে ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ করায় সোনারগাঁয়ে একজন কাউন্সিলরকে আটক করা হয়।

    নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৭টি ওয়ার্ডে ৩৫৭ জন ভোটার ছিলেন।

    তবে নির্বাচনে ১০টি ওয়ার্ডে ২৬ জন সাধারণ সদস্য এবং সংরক্ষিত ২টি ওয়ার্ডে ৫ জন নারী প্রার্থী প্রতিদ্বন্দীতায় অংশ নিলেও সদ্য অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা ভোটার হতে না পারায় সিটির আওতাধীন ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের ভোট গ্রহণ স্থগিত ছিল।