সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৭ ,৯ আশ্বিন ১৪২৪
২৯ ডিসেম্বর ২০১৬ বৃহস্পতিবার , ৭ : ৪৯ অপরাহ্ন

  • পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে হত্যা চেষ্টায় মামলা

    x

    Decrease font Enlarge font

    09টাইমস নারায়ণগঞ্জ (আড়াইহাজার সংবাদদাতা): নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে আল-আমিন নামে এক ম্পিনিং মিল শ্রমিককে পাইপ দিয়ে বাতাস ঢুকিয়ে পায়ুপথে হত্যার চেষ্টার ঘটনায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। খোকন খান নামে  প্রতিষ্ঠানের রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে থাকা এক কর্মকর্তা বাদী হয়ে বৃহম্পতিবার একই প্রতিষ্ঠানে কর্মরত রিমন নামে এক শ্রমিককে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন। এর আগে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে রিমনকে আটক করেছে। সে রাজশাহী জেলার চারঘাট থানাধীন থানাপাড়া এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে। আড়াইহাজার থানার ওসি মো: সাখাওয়াত হোসেন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। প্রসঙ্গত, গুপিন্দী এলাকায় অবস্থিত সাবেদ আলী নামে একটি সূতা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানে বুধবার কর্মরত শ্রমিক আল-আমিনের পায়ুপথে তুলা পরিস্কারের কম্প্রেসার মেশিনের পাইপ দিয়ে দুষ্টুমির ছলে বাতাস ঢুকিয়ে দেয় রিমন। এতে সে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ভুলতা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। আল-আমিন ব্রাহ্মন্দী এলাকার হাছান আলীর ছেলে। আড়াইহাজার থানার ওসি মো: সাখাওয়াত হোসেন বলেন, শ্রমিক আল-আমিন ঢাকামেডিকেল কলেজে চিকিৎসা নিচ্ছে। তিনি বর্তমানে আশঙ্কা মুক্ত বলে জানিয়েছেন সেখানকার দায়িত্বরত চিকিৎসকরা। এ ব্যাপারে একটি মামলা হয়েছে। এরই মধ্যে একজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও কেউ জড়িত আছে কিনা আমরা খুঁজ খবর নিচ্ছে। স্থানীয়রা জানান, স্পিনিং মিলের মধ্যে কর্মরত শ্রমিকের অধিকাংশই শিশু। তাদের কোনো প্রকার প্রশিক্ষণ না থাকায় প্রায় সময় শ্রমিকরা আহত হচ্ছে। মিলের ভেতরে কাজের সুস্থ পরিবেশ না থাকায় অনেক শ্রমিক স্বার্থ ঝুঁিকতে রয়েছেন। মিলের মালিক ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের চেয়রাম্যান লাক মিয়ার ভাই হওয়ায় স্থানীয় প্রশাসন এ ব্যাপারে নিরব ভূমি পালন করছেন। আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, মিলের মধ্যে শিশু শ্রম নিয়োজিত করা দন্ডনীয় অপরাধ। আইন না মেনে কেউ শিশু শ্রম নিয়োগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।