মঙ্গলবার, মে ২৩, ২০১৭ ,৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪
৩০ ডিসেম্বর ২০১৬ শুক্রবার , ২ : ৩২ অপরাহ্ন

  • আড়াইহাজার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিন্মমানের খাবার সরবরাহ

    x

    Decrease font Enlarge font

    gটাইমস নারায়ণগঞ্জ (আড়াইহাজার প্রতিনিধি): নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হওয়া রোগীদের মাঝে নিন্মমানের খাবার সরবরাহ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। খাবার সরবরাহকারী ঠিকাদার তালিকায় থাকা মেনুর তোয়াক্কা না করে ৭ বছর ধরে খাবার সরবরাহ করে আসছেন। তিনি ক্ষমতাসীন দলের সমর্থক হওয়ায় তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতে সাহস পাচ্ছে না। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রোগীপ্রতি খাবারের খরচ ধরা হয়েছে ১২৫ টাকা। এ পর্যন্ত দফায় দফায় বরাদ্দ বাড়লেও বাড়েনি খাবারের মান। তালিকা থাকা নিয়ম অনুুযায়ী প্রতিজন পূর্ণবয়স্ক রোগীর জন্য প্রতিদিন সকালে নাস্তায় কলা একটি, মুরগীর ডিম একটি ও পাউরুটি ৭০ গ্রাম। দুপুর ও রাতে গাভীর দুধ ১.৫ লিটার, পাউরুটি ১৪০ গ্রাম ও চিনি ৬০ গ্রাম বরাদ্দ দেয়ার কথা উল্লেখ্য রয়েছে। এছাড়াও বিশেষ দিবস উপলক্ষ্যে সেমাই, রসগোল্লা, চিনি ও দুধ দেয়ার বিষয়টি হালনাগাদ তালিকায় রয়েছে। কিন্তু এর কোনো নিয়মই মানছে না ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি। এতে রোগীরা তাদের জন্য বরাদ্দকৃত খাবার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। সরবরাহকৃত খাবার খেতে পারছে না রোগীরা। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কাহেন্দী গ্রামের মনছুর জানান, হাসপাতালের খাবার নিন্মমানের হওয়ায় তিনি বাড়ি থেকে এনে তিন বেলা খাবার খাচ্ছেন। ১২টা থেকে ১টার মধ্যে ভর্তিকৃত রোগীদের মাঝে খাবার তিরণের নিয়ম থাকলেও তাও মানা হচ্ছে না। প্রতিদিন এসব মনিটরিং করার কথা কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মনিটরিং করছেন সপ্তাহে মাত্র একদিন। ঠিকাদার জাকির হোসেন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি নিময় (সিডিউল) অনুসারেই খাবারের সামগ্রী ক্রয় করে সংশ্লি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে দিচ্ছি। পণ্যের ব্যাপারে কেউ এ পর্যন্ত অভিযোগ করেনি। তবে শতভাগ নিয়ম না সম্ভব নয়; খরচ বাদে আমার লাভের বিষয়টিও দেখতে হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার মো: হাবিব ইসমাইল ভূঁইয়া বলেন, খাবার নিয়ে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।