শনিবার, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৭ ,২ পৌষ ১৪২৪
০১ জানুয়ারী ২০১৭ রবিবার , ৮ : ৫৬ অপরাহ্ন

  • নতুন বছরে পুরনো শংকায় নারায়ণগঞ্জবাসী!

    x

    Decrease font Enlarge font

    06টাইমস নারায়ণগঞ্জ: বাংলায় একটি প্রবাদ আছে ‘পাঁটাপোঁতার ঘষাঘষি, মরিচের মরণ’। নতুন বছরে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগ ও বিরোধী দল বিএনপির পাল্টাপাল্টি দিবস উদযাপন নিয়ে এখন এমনটাই ভাবছে নারায়ণগঞ্জবাসী।

    পুরনো বছরের জীর্নতাকে বিদায় জানিয়ে ভাল কিছুর প্রত্যাশায় রবিবার (১ জানুয়ারী) ইংরেজী নতুন বছর ২০১৭ সালকে স্বাগত জানায় নারায়ণগঞ্জবাসী। কিন্তু ভাল কিছু প্রত্যাশার মধ্যেও এখন পুরনো সেই শংকা বিরাজ করছে জনমনে।

    কারন, আগামী ৫ জানুয়ারী দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তৃতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগ ‘গণতন্ত্র বিজয় দিবস’ এবং বিরোধী দল বিএনপি ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ পালনের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচী দিয়েছে।

    আওয়ামী লীগ ৫ জানুয়ারী ‘গণতন্ত্রের বিজয় দিবস’ পালন করবে জানিয়ে দলটির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাহাবুব আলম হানিফ ঐদিন বিএনপিকে এই দিবস নিয়ে কোনো ধরনের রাজনৈতিক কর্মসূচী পালন করতে রাজপথে নামতে না দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

    অপরদিকে, ৫ জানুয়ারী ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ উপলক্ষে সারাদেশে কালো পতাকা মিছিল, ব্যাজ ধারণ ও ঢাকায় সমাবেশ করবে বিএনপি বলে জানিয়েছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

    রিজভী বলেন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে ইতোমধ্যে সারাদেশের নেতা-কর্মীদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দলীয় কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন ও কালো ব্যাজ ধারণ করার জন্য বলা হয়েছে।

    যেই কারনে কেন্দ্রীয় কর্মসূচী পালনের প্রস্তুতি নিতে শুরু করে দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দরা।

    এব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি এড. তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ পালনে প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি। কারো হুংকারে পিছপা হবেনা।

    অতীত অভিজ্ঞতায় দেখাগেছে, বিগত ২০১৫ সালে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বর্ষপূর্তিকে বয়কট করে বছরের শুরু থেকে টানা তিনমাস হরতাল অবরোধ পালন করে বিএনপিসহ বিশ দলীয় জোট। নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন যানবাহনে ভাংচুর, অগ্নিসংযোগসহ বিভিন্ন স্কুল থেকে ককটেল উদ্ধার হয়। বিএনপি-জামায়াতের সেই সময়কার নাশকতায় নারায়ণগঞ্জে অনেক হতাহতের ঘটনা ঘটে। পরিবহন সেক্টরসহ ব্যবসা বানিজ্যে স্থবিরতা বিরাজ করে।

    যেই কারনে এবারও ৫ জানুয়ারীকে ঘিরে আওয়ামীলীগ-বিএনপির পাল্টাপাল্টি কর্মসূচীকে নিয়ে নতুন বছরে পুরনো শংকায় ভুগছেন নারায়ণগঞ্জবাসী।

    এব্যাপারে বিগত ২০১৫ সালে শহরের নিতাইগঞ্জ এলাকায় বিএনপির পিকেটিং এর সময়ে দুবৃর্ত্তদের ছোঁড়া আগুনে ক্ষতিগ্রস্থ ট্রাক চালক সোলেয়মান মিয়া বলেন, নতুন বছরে ভাল কিছু হবে এটাই চাই। আওয়ামীলীগ-বিএনপির কারনে আমাগো মত খেটে খাওয়া মানুষগো যেন আর কোন ক্ষতি না হয়।

    চাষাড়া এলাকার বাসিন্দা ব্যাংকার রিপন সাহা বলেন, বিগত সময়ে দু’টি রাজনৈতিক দলের কারনে প্রায় তিনমাস জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কর্মস্থলে যেতে হয়েছিল। কিন্তু এবছর ফের একই দিনে উভয় দলই পাল্টাপাল্টি কর্মসূচী দেয়ায় আবারো সেই ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, হামলার পুনরাবৃত্তি ঘটবে কিনা এনিয়ে শংকায় আছি।