মঙ্গলবার, জানুয়ারী ২৪, ২০১৭ ,১০ মাঘ ১৪২৩
০৫ জানুয়ারী ২০১৭ বৃহস্পতিবার , ১০ : ০৩ অপরাহ্ন

  • রূপগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হামলা, আহত-১৭

    x

    Decrease font Enlarge font

    guটাইমস নারায়ণগঞ্জ (রূপগঞ্জ প্রতিনিধি): নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে পূর্ব বিরোধের জের ধরে বসতবাড়িতে হামলা ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় হামলাকারীরা কুপিয়ে ও পিটিয়ে মহিলাসহ অন্তত ১৭ জনকে আহত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারী) দুপুরে উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের নাওড়া এলাকায় এই হামলার ঘটনা ঘটে।

    থানা ও আহতদের পারিবারিক সূত্র জানায়, নাওড়া এলাকার আমিজ আলীর ছেলে জাবুল হোসেনের সাথে একই এলাকার ফালু মিয়ার ছেলে সানাউল্লাহর দীর্ঘদিন যাবত এক খন্ড জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। সানাউল্লাহর পিতা ফালু মিয়া কয়েক বছর পূর্বে তার মালিকানাধীন জমি বিক্রি করে পেশী শক্তির জোরে জাবুল হোসেনদের কাছে সে জমি পূনরায় দাবি  করে সানাউল্লাহ। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার জাবুল হোসেন তার মালিকানাধীন বসতবাড়ির বাউন্ডারী দেয়ালে কাজ করার সময় সানাউল্লাহ সহযোগী একই এলাকার দুলাল মিয়া, আল হাদী, রাজু, নুর আলম, মজিবুর, এমারতসহ ৩০/৩৫ জন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে জাবুল হোসেনের উপর হামলা চালায়। এ সময় তারা জাবুলকে চাপাতি ও রামদা দিয়ে এলোপাথারী কোপাতে থাকে। এ সময় জাবুলকে বাচাতে তার আত্মীয়স্বজনরা এগিয়ে এলে হামলাকারীরা বকুল হোসেন, হারিজা বেগম, আল মামুন, আব্দুল লতিফ, আলী হোসেন, আবুল হোসেন, খোরশেদ মিয়া, উজ্জল মিয়া, সাদ্দাম হোসেন শাহানাজ বেগম, হালিমা বেগমসহ কমপক্ষে ১৭ জনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। এক পর্যায়ে তারা জাবুল হোসেনম বকুল হোসেন, শাহআলম ও আলী হোসেনের বাড়ীতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। এ সময় সকলের বাড়ি থেকে নগদ ১২ লাখ টাকা, স্বর্নালংকারসহ অন্তত ২০ লাখ টাকার মালামাল লুট করা হয়েছে বলে দাবি করেন হামলার শিকার পরিবারগুলো। আহতদের রূপগঞ্জ থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

    এ ব্যাপরে রূপগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ইসমাইল হোসেন বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি। এ ব্যাপারে হামলার শিকার পরিবারগুলোর পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। পুলিশ দোষীদের ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।