সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৭ ,৯ আশ্বিন ১৪২৪
৩১ মে ২০১৭ বুধবার , ৬ : ১৪ অপরাহ্ন

  • নগরীতে ভেজাল ও নিম্নমানের ইফতার

    x

    Decrease font Enlarge font

    03টাইমস নারায়ণগঞ্জ: পবিত্র মাহে রমজান মাসে প্রতিটি মুসলিম পরিবারে ইফতারে থাকে বাহারি আয়োজন। ভোজনরসিক ও মধ্যবিত্ত পরিবারের অনেকে ইফতারে নির্ভর করেন হোটেল ও খাবারের দোকানগুলোর উপর। কিন্তু নগরবাসীর অভিযোগ, এসব হোটেল ও খাবারের দোকানগুলোকে প্রশাসনের নাকের ডগায় প্রতিনিয়ত বিক্রি হচ্ছে বাসি এবং নোংরা পরিবেশে তৈরি খাবার।  একদিকে যেমন রমজানের পবিত্রতা নষ্ট হচ্ছে, বিপরীতে এসব খাবারে যে কেউ আক্রান্ত হতে পারেন কঠিন পীড়ায়।

    নগরীর বিভিন্ন রেস্তোরায় সরজমিনে ঘুরে দেখা যায়, রাস্তা ও ফুটপাত দখল করে নোংরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বাহারি রংঙের খাবারের পরসা সাজিয়ে দেদারছে বিক্রি করছে ইফতার সামগ্রী। রাস্তার ধুলো-বালি উড়ে এসে পড়ছে খাবারে, বসছে মশা ও মাছি। রাস্তা দিয়ে যানবহন চলাচলের সময় ব্যাপক হারে ধুলো-বালি ও কাদা পানি ছিটকে এসে পড়ছে ইফতার সামগ্রীতে।

    এছাড়াও হোটেল ও খাবারের দোকানগুলোতে নোংরা পরিবেশে তৈরি হচ্ছে বাহারি সব খাবার। আগের দিনের বাসি পচা খাবারগুলোকে তেলে ভেজে বা গরম করে টাটকা খাবার বলে প্রতারণা করছে সাধারণ ক্রেতাদের সাথে হোটেল ও খাবার দোকানের মালিকরা।

    নাম প্রকাশ না করার শর্তে নগরীর দুইনং রেলগেইটস্থ এক হোটেলের কর্মচারী বলেন, সারাদিন বিক্রির পর যে সকল খাবার থেকে যায় তা ফ্রিজে রাখা হয়। পরের দিন আবার ফ্রিজ থেকে সেই খাবার বের করে গরম করার পর আবারো ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করা হয়। আমরা যদি ফেলে দেই তাহলে দোকান মালিকের ক্ষতি হবে।

    03--1সাধারণ ক্রেতাদের অভিযোগ হোটেলগুলোতে প্রশাসনের নজরদারি না থাকায় অসাধু ব্যবসায়ীরা পার পেয়ে যাচ্ছে। প্রশাসনের ভূমিকা নিয়েও সাধারণ ক্রেতাদের মনে জন্ম নিয়েছে নানান প্রশ্ন। এই সকল অসাধু ব্যবসায়ীদে দমাতে দরকার মোবাইল কোর্ট পরিচালনা। তাহলে হয়তো রমজান মাসে অনন্ত মানুষ ভালো মানের খাবার গ্রহন করতে পারবে।

    ইফতারি কিনতে আসা এক ক্রেতা বলেন, গতকাল মিষ্টি কিনে ইফতারি করার সময় মিষ্টি খেতে পারিনি। মিষ্টি টক। ফেলে দিতে হয়েছে।

    চিকিৎসকদের মতে, এইসব বাসি পচা খাবার খেয়ে অসুস্থ সবার সম্ভাবনা অনেক। ডাইরিয়া সহ মারাত্মক রোগে আকান্ত হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। তারা জানান, যেসব খাবার ভাজা হয়, সেটার তেল পরিবর্তন করা হয় না, যা থেকে গ্যাষ্ট্রিক, এজমা সহ নানা রোগে আক্রান্ত হতে পারে।