সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৭ ,৯ আশ্বিন ১৪২৪
০৩ জুন ২০১৭ শনিবার , ১০ : ০১ অপরাহ্ন

  • হঠাৎ না’গঞ্জে বেড়েছে জ্বরের প্রকোপ

    x

    Decrease font Enlarge font

    10টাইমস নারায়ণগঞ্জ: হঠাৎ করেই নারায়ণগঞ্জে বেড়েছে জ্বরের প্রকোপ। বিশেষ ভাইরাজনিত জ্বর চিকনগুনিয়া ও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হছেন অনেকেই। নারায়ণগঞ্জের দু’টি সরকারী হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, গত এক সপ্তাহ ধরে জ্বরে আক্রান্তের রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। এদের বেশির ভাগই চিকনগুনিয়ায় আক্রান্ত কী না এ নিয়ে শঙ্কিত রোগীরা। তবে অবহেলা না করে প্রয়োজনমতো বিশ্রাম ও ওষুধ সেবনের পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকদের।

    বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, বৃষ্টিবাদলের এই সময়ে জমে থাকা জলে মশা বিস্তার লাভ করায় এই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে । বেশিরভাগ রোগী দ্রুত সুস্থ হলেও, চিকিৎসকরা বলছেন, চিকনগুনিয়ার জীবানু কিছু রোগীর শরীরে বয়ে বেড়াতে হয় সারা জীবন।

    নগরীতে হঠাৎই বেড়েছে, এমন ভাইরাস জ্বরের প্রকোপ। হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে রোগীদের ভীড়। যাদের বড় অংশই চিকনগুনিয়া কিংবা ডেঙ্গু আক্রান্ত। সেই সাথে যোগ হয়েছে, আমাশয়ের মতো পানিবাহিত রোগও।

    চিকিৎসকরা বলছেন, এডিস মশার অবাধ বিচরণই চিকনগুনিয়া ও ডেঙ্গু বিস্তারের মূল কারণ। আক্রান্ত হলে প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধ সেবনের পরামর্শ তাদের। তবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইরলজি বিভাগের একজন অধ্যাপকের মতে, যা ভাবা হচ্ছে চিকনগুনিয়ার প্রভাব তার চেয়েও বেশি। কিছু কিছু রোগীকে এর জের টানতে হবে আজীবন।

    চিকিৎসকরা বলছেন, অপরিকল্পিত নগরায়ন ও জলবায়ু পরিবর্তনও এসব রোগের জন্য অনেকাংশেই দায়ী। তাই এর বিস্তাররোধে নীতিনির্ধারকসহ সর্বস্তরের মানুষকে আরও দায়িত্বশীল হওয়ার পরামর্শ তাদের। বর্তমান বাস্তবতায় প্রতিকারের চেয়ে বেশি দরকার প্রতিরোধ বলে মনে করেন চিকিৎসাবিদরা।

    নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আসাদুজ্জামান টাইমস নারায়ণগঞ্জকে জানান, যদিও এসব নিয়ে আতঙ্কের কিছু নেই, তবুও সবাইকে সচেতন হতে হবে। নিয়মিত জ্বরের চিকিৎসা নিতে হবে।