সোমবার, নভেম্বর ২০, ২০১৭ ,৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৪
৩০ জুন ২০১৭ শুক্রবার , ৫ : ০০ অপরাহ্ন

  • ৩০ জুন শ্রমিক ইতিহাসের কলঙ্কজনক দিন: এড. ইসমাঈল

    x

    Decrease font Enlarge font

    02টাইমস নারায়ণগঞ্জ: এশিয়ার বৃহত্তম পাটকল আদমজী জুট মিল বন্ধ হওয়াকে শ্রমিক ইতিহাসের কলঙ্কজনক ইতিহাস বলে মন্তব্য করেছেন শ্রমিক নেতা এডভোকেট মাহবুবুর রহমান ইসমাঈল।

    তিনি বলেছেন, বিশ্বব্যাংক ও ভারতের নীল নকশার অংশ হিসেবে লোকসানের অজুহাত দেখিয়ে বিশ্বে বাংলাদেশের অন্যতম পরিচিতির এই পাটকলকে বন্ধ করে দেয়া হয়। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের শিল্পের মেরুদন্ড ভেঙে দেয়া হয়েছে।

    বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ পাটকল আদমজী বন্ধের বার্ষিকীতে নিজের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে এসব কথা বলেন এই আইনজীবি ও শ্রমিক নেতা।

    প্রসঙ্গত ২০০২ সালের ৩০ জুন এশিয়ার বৃহত্তম পাটকল আদমজী জুট মিলস বন্ধ করে দেয়া হয়। পরে সেখানে গড়ে তোলা হয় রপ্তানী প্রক্রিয়াকরণ এলাকা (ইপিজেড)।

    তিনি আরও বলেন, বিশ্বখ্যাত এই পাটকল বন্ধ করে দেয়া হলেও একই বছর ভারতে ৫টি পাটকল গড়ে তোলা হয় বিশ্বব্যাংকের আর্থিক সহায়তায়।

    এড. ইসমাঈল আরও বলেন, আর্ন্তজাতিক পুজিবাদের কাছে আত্মসমর্পন করে ভারতীয় পুজিবাদের সম্প্রসারণের লক্ষ্যে ৪০ হাজার শ্রমিকের পেটে লাথি মেরে পরিবেশবান্ধব এই পাটকলকে বন্ধ করা ছিলো বিশ্বব্যাংকের প্রেসক্রিপশন।

    তিনি বলেন, এর মাধ্যমে লাভবান হয়েছেন সরকারের উচ্চপদস্থ আমলা, মন্ত্রী-এমপিরা। কারণ শ্রমিকরা যে অভাব অনটনে ছিলো, তারা সে অভাব অনটনেই দিন কাটাচ্ছে।

    ইসমাঈল বলেন, বিশ্ববাজারে এখনও পাটের চাহিদা এখনও ব্যাপক। মিলটিকে আধুনিকায়ণ না করে বন্ধ করে দেয়া আত্মঘাতি।