রবিবার, অক্টোবর ১৩, ২০১৯ ,২৮ আশ্বিন ১৪২৬
১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ বুধবার , ৪ : ০৩ অপরাহ্ন

  • থামেনি কায়সারের ‘সিংহের’ গর্জন বেকায়দায় জাপার খোকা

    x

    Decrease font Enlarge font

    04টাইমস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে ভোটের হিসেব বদলে দিতে পারেন সিংহ প্রতীকের আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত। দলীয় সাধারণ সম্পাদকের ঘোষণার পরেও তিনি নির্বাচনী মাঠ থেকে সরে দাঁড়াননি। ফলে কায়সার হাসনাতের সিংহের গর্জন থামছে না। তিনি ভোটের মাঠে শেষ পর্যন্ত থাকবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। এতে বেকায়দায় পড়েছেন জাতীয় পার্টি নেতা মহাজোটের প্রার্থী লিয়াকত হোসেন খোকা।

    দলের মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়া আওয়ামী লীগের সাবেক এই সাংসদ নিজের জয়ে ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদীও। তিনি মনে করেন, সংসদ সদস্য থাকাকালীন জাতীয় পার্টির লিয়াকত হোসেন খোকা ও তার স্ত্রী শুধু সম্পদের পাহাড়ই গড়েছেন। দূর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে লিয়াকত হোসেন খোকা আওয়ামী লীগের দু:সময়ের কর্মীদের শুধু দূরেই ঠেলে দেননি নির্যাতনও করেছেন।

    আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ১৮ ডিসেম্বরের মধ্যে দলের বিদ্রোহী প্রার্থীদের নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর আল্টিমেটাম দেন। কিন্তু এর পরেও নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন আব্দুল্লাহ আল কায়সার। নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আমি নির্বাচনে জয়ে আশাবাদী, তাই মাঠ ছাড়ার প্রশ্নই উঠে না।

     

    ২০০১ সালে বিএনপির প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক রেজাউল করিমকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে ধরাশায়ী করে চমক লাগিয়ে দেন ধর্নাঢ্য পরিবারের সন্তান আব্দুল্লাহ আল কায়সার। টানা তিনবার জয়ী হবার পরে রেজাউল করিম ওই প্রথম পরাজয়ের স্বাদ নেন।

    এদিকে আওয়ামী লীগের একটি সূত্র জানায়, ২০১৪ সালে কায়সার হাসনাতকে পরবর্তীতে মনোনয়ন দেয়া হবে এমন আশ্বাস দিয়ে জাতীয় পার্টিকে আসনটি ছেড়ে দেয়া হয়। কিন্তু এবারও সেই আশ্বাসের কোন প্রতিফলন না দেখায় আওয়ামী লীগ নেতাদের অনুরোধেই প্রার্থী হন কায়সার।