রবিবার, মে ২৬, ২০১৯ ,১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ মঙ্গলবার , ৪ : ১২ অপরাহ্ন

  • তিন নারীকে মধ্যযুগীয় নির্যাতনের মামলায় ইউসুফ মেম্বার রিমাণ্ডে

    x

    Decrease font Enlarge font

    003টাইমস নারায়ণগঞ্জ: বন্দরে তিন নারীকে মধ্যযুগীয় নির্যাতনের ঘটনায় মূল আসামি ইউপি সদস্য ইউসুফ আলীকে দুই দিনেররিমাণ্ডে নিয়েছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) নারায়ণগঞ্জের জৈষ্ঠ বিচারিক হাকিম ফাহমিদা খাতুনের আদালত এ আদেশ  দেন। এর আগে সোমবার সন্ধ্যায় ইউসুফকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ইউসুল আলী বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের এক নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি তাঁর নেতৃত্বে বন্দরের কলাবাগ এলাকায় তিন নারীকে পতিতা আখ্যা দিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করা হয়। তিন নারীকে গণধোলাই দিয়ে মাথার চুল কেটে গাছের সাথে বেঁেধ রাখা হয়।

    সোমবার বিকালেই ইউসুফ আলী মেম্বার সহ ৯ জনের নাম উল্লেখ করে ২৯ জনের নামে মামলা করেন নির্যাতিতা ফাতেমা ওরফে ফতেহ। নির্যাতনের শিকার অন্য দুই নারী হলেন-বন্দর শাহী মসজিদ এলাকার বাছেদ আলীর মেয়ে আসমা বেগম (৩৫) ও বুরুন্দি এলাকার বকুল মিয়ার স্ত্রী বানু বেগম (৩০)। ঘটনাটি গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পরে সোমবার দুপুরে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের একটি দল নারায়ণগঞ্জে আসেন। প্রতিনিধি দলটি নির্যাতিতা তিনজনের সাথে ওইদিনের ঘটনা সর্ম্পকে বিস্তারিত জানেন। পরে প্রতিনিধি দলটি বন্দর থানার ওসিকে এ ঘটনায় মামলা দায়েরের অনুরোধ জানান। 003-1জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের পরিচালক (অভিযোগ ও তদন্ত) জেলা ও দায়রা জজ আল মাহমুদ ফায়জুল কবিরের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ওই টিমে অপর দুইজন হলেন-উপ পরিচালক গাজী সালাম ও সদস্য বাঞ্চিতা চাকমা। আল মাহমুদ ফায়জুল কবির সাংবাদিকদের জানান, ঘটনাটি মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। তা জামিন অযোগ্য অপরাধ। ভুক্তভোগীর সর্বাত্মক সহযোগিতায় পাশে থাকবে মানবাধিকার কমিশন।