রবিবার, জুন ১৬, ২০১৯ ,২ আষাঢ় ১৪২৬
১৮ মার্চ ২০১৯ সোমবার , ৬ : ১১ অপরাহ্ন

  • একটি কুকুর মারা গেলেও ওসমান পরিবারকে দোষারোপ করা হয়, কিন্তু কেনো?- সজল

    x

    Decrease font Enlarge font

    up-1টাইমস নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে এখন একটি কুকুর মারা গেলেও ওসমান পরিবারকে দোষারোপ করা হয়, কিন্তু কেনো? সাধারণ মানুষের কাছে এমন প্রশ্ন রেখেছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাজমুল আলম সজল।

    সোমবার (১৮ মার্চ) বিকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে অপহৃত সাদমান সাকির পিতা সৈয়দ ওমর খালেদ এপনের মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক বক্তব্যের প্রতিবাদে এ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন প্রশ্ন রাখেন।

    সংবাদ সম্মেলনে নাজমুল আলম সজল বলেন, নারায়ণগঞ্জে যেকেউ কোন বা হারানো গেলেই একটি মহল ৩-৪ জন লোক নিয়ে একটি ব্যানার নিয়ে দাড়িয়ে যায়। এবং ওসমান পরিবারকে দোষারোপ করে। আমরাও চাই হত্যাকারীর বিচার হউক কিন্তু তথ্য প্রমান ছাড়া কারো বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনলে আসল অপরাধীরা সহজেই পার পেয়ে যায়।

    তিনি অপহৃত সাদমান সাকির পিতা সৈয়দ ওমর খালেদ এপনের মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, সাদমান সাকি একটি শিশু। আমারও একজন বাচ্চা আছে। কিন্তু আমার বিরুদ্ধে কোন তথ্য প্রমান ছাড়া এমন নেক্কারজনক বক্তব্যে দেওয়ার কোন কারণ খুজে পাচ্ছি না। শিশু সাদমান সাকি হারিয়েছে আরও ১০ মাস আগে, মামলাও হয়েছে কিন্তু সেখানে আমার কোন নাম নেই। ১০ মাস পরে এসে কেনো আমার নামে অভিযোগ করা হচ্ছে?

    আমি অপরাধী হলে প্রথমেই মামলার এজাহারে আমার নাম কেনো দেওয়া হলো না? ১০ মাস পরে এটাই কি প্রমানিত হয় না কেউ সাকির বাবাকে শিখিয়ে দিচ্ছে আর সে তোতা পাখির ন্যায় সেই বক্তব্যে দিচ্ছে? সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন হোসিয়ারী এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি কবির হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়েত আলম সানী, মহানগর কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান লিটন সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

    উলেখ্য, গত ১৬ মার্চ শনিবার সর্বস্তরের জনগনের ব্যানারে সাদমান সাকিকে উদ্ধারের দাবীতে একটি মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে সাদমান সাকির বাবা এপন তার সন্তান অপহরণ করেছে শামীম ওসমানের লোক নাজমুল আলম সজল। এ বিষয়ে পরদিন স্থানীয় বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে সাংবাদও প্রকাশ হয়।