রবিবার, জুন ১৬, ২০১৯ ,২ আষাঢ় ১৪২৬
২৪ মার্চ ২০১৯ রবিবার , ৭ : ৩৫ অপরাহ্ন

  • ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা চলছে- শাহজাহান ভূঁইয়া

    x

    Decrease font Enlarge font

    UP-02টাইমস নারায়ণগঞ্জ: রূপগঞ্জে নির্বাচনী পরিবেশ নেই দাবী করে গত ২৩ মার্চ নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ৭ প্রার্থী কর্তৃক আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের সামনে যেসব তথ্য এবং অভিযোগ তুলে ধরা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবী করেছেন ক্ষমতাসীন দলের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহজাহান ভূঁইয়া। তিনি বলেন, ‘কোন একটি মহল অসৎ উদ্দেশ্যে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীকে আমাদের সাথে জড়িয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। মূলত রূপগঞ্জে আমাদের জনপ্রিয়তায় ইর্ষান্বিত হয়েই তারা এই অপপ্রচার চালাচ্ছে।’

    গতকাল রবিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এসব কথা জানান তিনি। সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিসহ ৫ জন ভাইস চেয়ারম্যান এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান উপস্থিত ছিলেন।

    শাহজাহান ভূঁইয়া বলেন, ‘নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন হয়, এমন কর্মকান্ড থেকে আমরা দূরে থাকার চেষ্টা করি। কিছুদিন পূর্বে রূপগঞ্জের রুপসীতে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে মন্ত্রী গাজীর সাথে দেখা হলেও আমরা তার পাশে বসা ছিলাম না। কেননা আমরা জানি এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে কেউ কেউ ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করবে।’

    তিনি বলেন, ‘২০০৯ সাল থেকে আমি রূপগঞ্জ উপজেলায় নির্বাচিত হয়ে আসছি। এবারও দল আমার জনপ্রিয়তার দিক বিবেচনা করে আমাকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছে। যারা এসব মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে, তারা রূপগঞ্জের ১২৭টি কেন্দ্রের ৮০০ বুথে নিজেদের ৮০০ এ্যাজেন্ট দিতে পারবে কী না তানিয়ে সংশয় রয়েছে। জনপ্রিয়তায় পিছিয়ে পরেই তারা এমন অপপ্রচার চালাচ্ছেন। আমরা চাই একটি অবাধ, সুন্দর ও সুষ্ঠু নির্বাচন।’

    এক প্রশ্নের জবাবে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ফেরদৌসী আক্তার নীলা বলেন, ‘নিশ্চিত পরাজয় জেনেই একটি মহল আমাদের বিরুদ্ধে এই অপপ্রচার চালাচ্ছে। আমাদের বিরুদ্ধে প্যানেল হ্যান্ডবিলের যে অভিযোগ উঠেছে তা অপপ্রচারের একটি কৌশল। কে বা কারা ওই হ্যান্ডবিল করেছে সে বিষয়ে আমরা অবগত নই।’

    সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোঃ মোতাহার হোসেন, শহরিয়া পান্না সোহেল, মোঃ আব্দুল আলীম সরকার, হাবীবুর রহমান হারেজ এবং সাবেক শ্রমিক লীগ নেতা মতি আকন্দ প্রমূখ।

    প্রসঙ্গত, রূপগঞ্জে নির্বাচনী পরিবেশ নেই দাবী করে গত শনিবার (২৩ মার্চ) বেলা ১২টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ৭জন প্রার্থী। আসন্ন রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীর হস্তক্ষেপে সুষ্ঠ নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে তারা দাবী জানান। একই সাথে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. শাহজাহান ভূইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী সোহেল আহমেদ ভূইয়া (চশমা) ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী মোসা. ফেরদৌসী আক্তার নীলা (হাঁস) এই ৩ জনের একটি প্যানেল তৈরি করে প্রার্থী ও সমর্থকরা ছাড়া অন্য কেউ উপজেলায় প্রচারণা চালাতে গেলে তাদের বাঁধাগ্রস্থ করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তারা।